নিজের শরীর দেখে ঘৃণা হত’-বিস্ফোরক বিরাটপত্নী অনুষকার

নিজের শরীর দেখে ঘৃণা হত’-বিস্ফোরক বিরাটপত্নী অনুষকার

‘নিজের শরীর দেখে ঘৃণা হত’-বিস্ফোরক বিরাটপত্নী অনুষকার

বিয়ে, সংসার, মা হওয়া নিয়ে কখনই প্রকাশ্যে কিছু বলতে শোনা যায়নি বলিউড অভিনেত্রী ও বিরাট কোহলীর স্ত্রী অনুষকা শর্মাকে। অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করলেও, অনুষকা কিন্তু এখনো সবার চোখের আড়ালেই রেখেছেন তার মেয়ে ভামিকাকে।

তবে সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে মাতৃত্ব নিয়ে এই প্রথম মুখ খুললেন অনুষকা। মা হওয়ার সময় তার মনের মধ্যে লুকিয়ে রাখা এক দুশ্চিন্তার কথাও জানালেন এই সাক্ষাৎকারে।
ক্রিকেটার বিরাট কোহলির সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়ার পর থেকেই সিনেমা থেকে অল্প হলেও নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন অনুষকা। হাতে গুণে কয়েকটা ছবিই করতেন। তবে নিজের প্রযোজনা সংস্থা খুলে বলিউডের সঙ্গে নিয়মিত যোগসূত্র অবশ্য রেখেছিলেন তিনি।

এই সাক্ষাৎকারে অনুষকা জানিয়েছেন, মা হওয়া নিয়ে আমি খুব চাপে ছিলাম। ভয় পাচ্ছিলাম। আসলে একজন নারীর মা হওয়ার আগে ও পরে মেয়েদের নানা পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যেতে হয়। তখনই মাথার ভিতর নানা চিন্তা ঘুরতে থাকে। ওই সময়ই আমার মনে হয়েছিল সন্তান জন্মানোর পর আমি শরীরকে ঘেন্না করতে শুরু করব না তো!

অনুষকা আরো বলেন, আমার মনে হচ্ছে আমার শরীর আগের মতো থাকবে না; এমনকি আগের মতো টোনডও থাকবে না। এটা নিয়ে বিশেষ সচেতন, এমনকি শরীরচর্চাও করছি। যদিও আমার কাছে সঠিক শরীর বলে কিছু হয় না। আমাকে কেমন দেখতে লাগছে সেটা কখনই আমার হাতে নেই।

অনুষকার কথায়, এই সময়টা আমাকে বিরাট খুব সাহায্য করেছে। বিরাটকে পুরনো ছবি দেখালে, বিরাট বলে এই সময়টা এনজয় করতে, কারণ এটাই ভবিষ্যতে এটাই থাকবে। তবে এখন আমি ভামিকাকে নিয়ে দারুণ আনন্দে রয়েছি। মাতৃত্বের অনুভূতির কাছে এসব গুরুত্ব পায় না।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *